বিমান বাহিনীর বিভিন্ন ইউনিট ও স্কোয়াড্রনকে বিমান বাহিনী পতাকা প্রদান

0
7

ফোর্সেস নিউজ : বাংলাদেশ বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চীফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত, বিবিপি, ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি আজ বুধবার বাংলাদেশ বিমান বাহিনী ঘাঁটি বাশার এর প্যারেড গ্রাউন্ডে বিমান বাহিনীর বিভিন্ন ইউনিট এবং স্কোয়াড্রনকে বিমান বাহিনী পতাকা প্রদান করেন।

বিমান বাহিনী প্রধান প্যারেড গ্রাউন্ডে এসে পৌঁছলে তাকে স্বাগত জানান বিমান বাহিনী ঘাঁটি বাশারের এয়ার অধিনায়ক এয়ার ভাইস মার্শাল মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম, বিএসপি, এনএসডব্লিউসি, এএফডব্লিউসি, পিএসসি।

পতাকা প্রদানের এই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী প্রধান ঘাঁটি বাশার কর্তৃক আয়োজিত একটি মনোজ্ঞ কুচকাওয়াজ প্রত্যক্ষ করেন। কুচকাওয়াজে নেতৃত্ব দেন গ্রুপ ক্যাপ্টেন মোঃ মুকিত-উল-আলম মিঞা, বিইউপি, পিএসসি, জিডি(পি)।

আড়ম্বরপূর্ণ এই অনুষ্ঠানে বিমান বাহিনী প্রধান বিমান বাহিনী সদর দপ্তর এবং এর লজার ইউনিট সমূহকে নিরলসভাবে সকল প্রকার প্রশাসনিক, সরবরাহ ও রক্ষণাবেক্ষণ সহায়তা প্রদানের মাধ্যমে বিমান বাহিনীর কার্যক্রম বেগমান রাখার স্বীকৃতি স্বরূপ বিমান সদর দপ্তর (ইউনিট) কে এবং দেশের বিভিন্ন দুর্যোগে (ঘূর্ণিঝড়, জলোচ্ছাস, অগ্নি দূর্ঘটনা ইত্যাদি) অসামান্য অবদান এবং জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে দেড় যুগ ধরে দেশের ভাবমুর্তি উজ্জ্বল রাখার স্বীকৃতি স্বরূপ ৩১ স্কোয়াড্রনকে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী পতাকা প্রদান করেন।

একই সাথে বিভিন্ন ভিভিআইপিদের নিরাপত্তা প্রদান, বিমান বাহিনী সদস্যদের শৃঙ্খলা বজায় রাখা এবং বিমান বাহিনীর স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন কার্যক্রমের স্বীকৃতি স্বরূপ ১ প্রভোস্ট ও নিরাপত্তা ইউনিটকে এবং বিমান বাহিনীর রিক্রুট প্রশিক্ষণ এবং গাড়ি চালকদের প্রশিক্ষণসহ বিমান বাহিনীর সদস্যদের বিভিন্ন রকম প্রশিক্ষণে অনবদ্য সহযোগীতার স্বীকৃতি স্বরূপ বিমান বাহিনী স্টেশন শমশের নগরকে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী পতাকা প্রদান করেন। বিমান বাহিনী পতাকা হস্তান্তরের পর তিনি বিশেষ মোনাজাতে অংশগ্রহণ করেন।

পতাকা প্রদান অনুষ্ঠানে বিমান বাহিনী প্রধান বিমান বাহিনীর সকল স্তরের সদস্যদের উদ্দেশ্যে সংক্ষিপ্ত ভাষণে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান সহ বাংলাদেশ বিমান বাহিনী তথা বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সকল বীর শহীদদের, যাদের আত্বত্যাগ এবং রক্তের বিনিময়ে আমরা লাভ করেছি স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব।

এছাড়াও, তিনি বিমান বাহিনীর সকল সদস্যদের পেশাগত দক্ষতা ও উৎকর্ষতা অর্জনের উপর তাগিদ দেন। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন যে, বাংলাদেশ বিমান বাহিনী দেশের আকাশ সীমার নিরাপত্তা ও সুরক্ষা ছাড়াও ভবিষ্যতে মহাকাশেও অপারেশনাল কার্যক্রম পরিচালনা করবে।

দেশের এভিয়েশন শিল্প বিকাশে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী পতাকা অর্জনকারী এই ইউনিট ও স্কোয়াড্রনের প্রতিটি সদস্যকে তিনি ধন্যবাদ জানান এবং সম্মানের প্রতীক হিসেবে প্রদানকৃত বিমান বাহিনী পতাকা এর মর্যাদা ও সম্মান অক্ষুন্ন রাখতে সকলকে সচেষ্ট থাকতে বলেন।

অনুষ্ঠানে বিমান বাহিনীর প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসারগণ, সশস্ত্র বাহিনীর উর্দ্ধতন কর্মকর্তা এবং বিমান বাহিনীর অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। আইএসপিআর