আফগানিস্তানে অস্ত্রের চালান পৌঁছে দিয়েছে ভারত

0
23

ফোর্সেস নিউজ : দক্ষিণ আফগানিস্তানের একটি বড় শহর কান্দাহারে অবস্থিত কনস্যুলেট থেকে “সাময়িকভাবে” কর্মকর্তাদের ফিরিয়ে নেয়া হয়েছে বলে গত রবিবার ভারত জানিয়েছে।

কারণ আন্তর্জাতিক বাহিনী প্রত্যাহারের মধ্যে তালেবান যোদ্ধারা অগ্রযাত্রা অব্যাহত রেখেছে। ফলে নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

তবে সূত্র জানিয়েছে যে, নয়াদিল্লিও বিভক্ত কাবুল প্রশাসনের কাছে গোলাবারুদ সরবরাহ করছে এবং সম্প্রতি আর্টিলারি শেল ভর্তি করে দুটি কার্গো বিমান কাবুল ও কান্দাহারে পাঠানো হয়েছে। একই বিমান দুটি শহর থেকে ভারতীয় কর্মকর্তাদের সরিয়ে নেয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়েছিল।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রধান মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘কান্দাহার শহরের কাছে তীব্র লড়াইয়ের কারণে, ভারত ভিত্তিক কর্মীদের আপাতত ফিরিয়ে আনা হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘ভারত আফগানিস্তানের ক্রমবর্ধমান নিরাপত্তা পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে। কান্দাহারে ভারতের কনস্যুলেট অস্থায়ীভাবে স্থানীয় কর্মীরা চালাচ্ছেন।

তালেবান কর্মকর্তারা গত শুক্রবার দাবি করেন যে, তারা আফগানিস্তানের ৮৫শতাংশ ভূখণ্ডের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে। তবে আফগানিস্তানের সরকারী কর্মকর্তারা এই দাবীটিকে অপপ্রচার বলে উড়িয়ে দিয়েছেন। এ বিষয়ে শুক্রবার ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সহিংসতা হ্রাস করার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটির পরিস্থিতি আঞ্চলিক সুরক্ষার উপর সরাসরি প্রভাব ফেলেছে।

তবে, শনিবার ভারতীয় বিমানবাহিনীর (আইএএফ)একটি সি -১ বিমান সকাল ১১ টায় কান্দাহার এয়ারফিল্ডে পৌঁছে। বিমানটি দিয়ে সেখানে ৪২ টন ১২২ মিমি আর্টিলারি শেল সরবরাহ করা হয়।

এরপর রবিবার সন্ধ্যায় আরেকটি আইএএফ সি-১ বিমান কাবুল এয়ারফিল্ডে পৌঁছে আরও ৪০ টন ১২২ মিমি আর্টিলারি শেল নিয়ে। জয়পুর ও চণ্ডীগড় থেকে ছেড়ে আসা এই বিমানগুলো ভারতীয় কর্মকর্তাদের সরিয়ে নেয়ার জন্যও ব্যবহৃত হয়েছিল। কাবুলের রাস্তায় ভারতীয় অস্ত্র বোঝাই ট্রাকও দেখা গেছে। ট্রিবিউন